বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২:৪৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
রাজশাহীতে সামাজিক মাধ্যমে অপপ্রচারের অভিযোগ মোহনপুরে কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে এমপি আয়েন’র ইফতার আয়োজন রাজশাহীর মোহনপুরে মটর সাইকেল চোর আটক মোহনপুরে ভোটার বিহীন উপজেলা আ: লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলণের প্রস্তুতি রাজশাহীর মোহনপুরে দিনে দুপুরে চলছে পুকুর খনন নির্বাক প্রশাসন মোহনপুরে পরকীয়া করতে গিয়ে যুবক আটক মোহনপুরে ১৪৪০ পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক রাবি ক্যাম্পাসে ট্রাকচাপায় শিক্ষার্থী হিমেল নিহত, রাসিক মেয়রের শোক প্রকাশ ভারতীয় সহকারী হাই কমিশন অফিসে ২৩ জন করোনায় আক্রান্ত বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ট্রান্সফরমার থেকে আগুনে পুড়েছে কৃষকের স্বপ্ন  রাসিক মেয়র লিটনের করোনা মুক্তি কামনায় সত্যের জয় সামাজিক সংগঠনের দোয়া মাহফিল রাজশাহীতে বিশিষ্টজনরা করোনা আক্রান্ত,বরেন্দ্র প্রেস ক্লাবের সুস্থতা কামনা রাজশাহীতে বিশিষ্টজনরা করোনা আক্রান্ত,বরেন্দ্র প্রেস ক্লাবের দোয়া মোনাজাত করোনা আক্রান্ত এমপি আয়েন, বিভাগীয় কমিশনার ও ডিসি আরএমপি ডিবি’র অভিযানে ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার ১ রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল করোনায় আক্রান্ত মোহনপুরে কর্মরত এসআই ইব্রাহিম জেলার শ্রেষ্ঠ এসআই নির্বাচিত নাসিক নবনির্বাচিত মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীকে রাসিক মেয়র লিটনের অভিনন্দন রাসিক মেয়রের দ্রুত সুস্থ্যতা কামনায় রাজশাহী বরেন্দ্র প্রেসক্লাবের দোয়া মাহফিল অনার্স পড়ুয়া ভ্যানচালক ছাত্রের সাথে চাকুরীর নামে প্রতারণা

ফাইভ-জি মহাসড়কে বাংলাদেশ

ঢাকা: রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন মোবাইল অপারেটর টেলিটকের মাধ্যমে দেশে পঞ্চম প্রজন্মের মোবাইল প্রযুক্তি (ফাইভ-জি) সেবার উদ্বোধন করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় পঞ্চম ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবসে রোববার (১২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর রেডিসন ব্লুতে আয়োজিত ‘নিউ ইরা উইথ ফাইভ-জি’ অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হয়ে এই সেবার উদ্বোধন করেন।

টেলিটকের মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে ঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, ধানমন্ডি-৩২, বাংলাদেশ সচিবালয়, মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ এবং ঢাকার বাইরে সাভার ও টুঙ্গিপাড়ায় এই সেবা পাওয়া যাবে। হুয়াওয়ে এবং নোকিয়ার সহযোগিতায় এই সেবা চালু করা হচ্ছে।  

বিশ্বের নবম দেশ হিসেবে বাংলাদেশে ফাইভজি সেবা চালু হলো বলে অনুষ্ঠানে জানানো হয়।

এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে অনুপ্রেরণামূলক বার্তা দেন।  

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি একেএম রহমতুল্লাহ, টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. খলিলুর রহমান, বিটিআরসির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার, টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সাহাব উদ্দিন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ফাইভ-জি প্রযুক্তি সেবা কেবল গ্রাহকদের জন্য মোবাইল ব্রডব্যান্ড ও ভয়েস কলের প্রযুক্তি নয়। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, আইওটি, রোবোটিক্স, বিগডাটা, ব্লকচেইন, আইওটি প্রযুক্তির আইওটি, হিউম্যান টু মেশিন, মেশিন টু মেশিন, ইত্যাদি প্রযুক্তি ও ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে ক্রিটিক্যাল মিশন সার্ভিস, স্মার্ট গ্রিড, স্মার্ট সিটি, স্মার্ট হোম, স্মার্ট ফ্যাক্টরী সুবিধা গ্রহণ করতে পারবে।

এই প্রযুক্তির মাধ্যমে মোবাইল গ্রাহকরা অধিকতর উন্নত গুণগত মানের ভয়েস কল ও ফোরজি থেকে বহুগুণ দ্রুত মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারে সক্ষম হবে। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকায় বসে প্রত্যন্ত অঞ্চলে রোগীর রোবট সার্জারি করা যাবে। ড্রাইভার বিহীন গাড়ি চালানো যাবে, স্মার্ট ফ্যাক্টরি স্থাপনের মাধ্যমে অটোনোমাস উৎপাদন সক্ষমতা অর্জন করে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি করা যাবে।  

প্রাথমিকভাবে ঢাকার ছয়টি স্থানে ফাইভ-জি কাভারেজের আওতায় আনা হলেও পরবর্তীতে টেলিটক ঢাকা শহরের ২০০টি গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় এ প্রযুক্তি সেবা চালু করবে। আগামী বছর মার্চে বেতার তরঙ্গ বরাদ্দ নিলামে দেওয়ার পর বেসরকারি তিনটি মোবাইল অপারেটর এই প্রযুক্তি চালু করবে। ২০২২ সালের পর টেলিটক ও বিটিসিএলের মাধ্যমে দেশের গুরুত্বপূর্ণ শিল্পাঞ্চল বিশেষ করে স্পেশাল ইকোনোমিক জোনসমূহে এই সেবা চালু করার প্রস্তুতির কাজ চলছে।

২০১৮ সালে ঘোষিত আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে বাংলাদেশে ২০২১ থেকে ২০২৩ সালের মধ্যে ফাইভ-জি চালু করার প্রতিশ্রুতি প্রদান করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় টেলিটক সীমিত পরিসরে ফাইভ-জি চালু করতে যাচ্ছে।

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে ২০০৮ সালের ১২ ডিসেম্বর শেখ হাসিনা ঘোষিত দূরদৃষ্টি কর্মসূচির ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ ফাইভ-জি যুগে প্রবেশ করছে। ২০১৮ সালে বার্সিলোনায় ওয়ার্ল্ড মোবাইল কংগ্রেসে ফাইভ-জি ধারণাটি পাওয়ার পর প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব আহমেদ ওয়াজেদ জয়ের সরাসরি উপস্থিতিতে ২০১৮ সালের জুলাই মাসে ঢাকায় এই প্রযুক্তির প্রথম পরীক্ষা সাফল্যের সঙ্গে সম্পন্ন করা হয়।

হুয়াওয়ের এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের প্রেসিডেন্ট সাইমন লিন এবং হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী ঝ্যাং ঝেংজুন অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন। বাংলাদেশ ও ফাইভ-জি উন্মোচনের সঙ্গে সম্পৃক্ত সবাইকে অভিনন্দন জানান তারা।  

স্যোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved © 2021 janatarkantho.com
ডিজাইন ও তৈরী করেছেন- হাবিবুর রহমান নীল